লোকসভা নির্বাচনের সাত সতেরো

  • 79 Views
  • 5 months ago
  • খোঁজখবর

খোঁজখবর, ওয়েবডেস্ক : ১৯৪৭ সালের ১৫ অগস্ট দেশভাগের মধ্য দিয়ে যখন স্বাধীন ভারতবর্ষের জন্ম হয় তখন দেশে চলছিল ১৯৪৬ সালের নির্বাচনে গড়া গণ পরিষদ এবং রাজ্যে রাজ্যে আইনসভা ৷ ধীরে ধীরে স্বাধীনদেশে নির্বাচন করার ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা শুরু হল৷ ১৯৫০ সালে দেশের সংবিধান প্রবর্তনের পর ১৯৫১ সালে জন প্রতিনিধিত্ব আইন সেই কাজে সাহস যোগাল৷ এই জন প্রতিনিধিত্ব আইনের খসড়া করেছিলেন এক বঙ্গসন্তান – তিনি হলেন আইসিএস মৃগাঙ্গমৌলি বসু ৷ ওই সময় প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু তৎকালীন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বিধান রায়ের পরামর্শে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব সুকুমার সেনকে প্রথম নির্বাচন কমিশনার করা হয় ৷ ভারতের নির্বাচন কমিশন গঠিত হল একটি স্বশাসিত সংস্থা যেটি দেশটির সকল নির্বাচন পরিচালনা করে থাকে।
সদ্য স্বাধীন হওয়া দেশটিতে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা তখন রীতিমতো কঠিন কাজ কারণ তখন ১৭.৬ কোটি ভোটারের ৮৫ শতাংশ ছিলেন নিরক্ষর ৷ তাঁদের কথা ভেবে প্রার্থীর নামের সঙ্গে প্রতীকের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তাছাড়া ওই সময় অনেক মহিলারই নিজস্ব নাম ব্যবহার হত না, তাঁরা পরিচিতি ছিলেন- অমুকের মা বা তমুকের পত্নী হিসেবে। ফলে তাঁদের নাম খুঁজে ভোটার তালিকায় তোলার কাজটা কতটা শক্ত ছিল তা অনুমেয়। পরিকাঠামো গত সমস্যা এড়াতে অজস্র সেতু নির্মাণ করতে হয়েছিল প্রত্যন্ত এলাকাতে ভোট পরিচালনার জন্য।

সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। এবার সাত দফায় নির্বাচন হবে।ভারতের নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী এপ্রিল ও মে মাসে মোট সাত ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ১১ই এপ্রিল থেকে ১৯মে’র মধ্যে অনুষ্ঠিতব্য এ নির্বাচনের মাধ্যমেই গঠিত হবে নতুন লোকসভা।

তবে নির্বাচনের ভোট গণনা হবে আগামী ২৩শে মে অর্থাৎ সেদিনই জানা যাবে ক্ষমতার অলিন্দে কারা এলেন। ৫৪৩ আসনের লোকসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজন হবে ২৭২ আসন।

প্রায় ৯০ কোটি ভোটার এবারের নির্বাচনে ভোট দেয়ার সুযোগ পাবেন এবং এজন্য ভোট কেন্দ্র থাকবে দশ লাখেরও বেশি। উল্লেখ্য ভারতের ভোটার সংখ্যা যৌথভাবে ইউরোপ ও অস্ট্রেলিয়ার মোট জনসংখ্যার বেশি। ২০১৪ সালের ষোড়শ লোকসভা নির্বাচনে ৬৬% ভোটার ভোট দিয়েছিলো এবং ৪৬৪টি দলের ৮ হাজার ২৫০ প্রার্থী সে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলো।এবার ভোট হবে ১১,১৮,২৩ ও ২৯ এপ্রিল এবং ৬,১২ ও ১৯শে মে। পাশাপাশি কিছু রাজ্যে বিধানসভা ভোট হবে কয়েক ধাপে।

ভারতের প্রথম নির্বাচন হয়েছিলো ১৯৫১-৫২ সালে এবং সেটি শেষ করতে সময় লেগেছিলো তিন মাস। ১৯৬২ থেকে ৮৯ সালের মধ্যকার নির্বাচনগুলোতে সময় লেগেছিলো ৪-১০দিন। সবচেয়ে কম চারদিন সময় লেগেছিলো ১৯৮০ সালের নির্বাচনে।