বাংলায় বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করল বিশ্বের ৩৫ টি দেশ

    0
    67

    খোঁজখবর ওয়েবডেস্ক ঃ বাংলায় বিনিয়োগের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করল বিশ্বের ৩৫ টি দেশ। আজ এখানে এক তারকাখচিত হোটেলে সেইসব দেশের দূত সহ প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করলেন রাজ্যের অর্থ এবং শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র। বন্দর, তথ্য প্রযুক্তি, চর্মশিল্প, কনস্ট্রাকশন কেমিক্যালস, পরিকাঠামো, সৌরশক্তি সংক্রান্ত নানা ক্ষেত্রে বিনিয়োগের প্রাথমিক কথাবার্তা সেখানে হয়েছে। এরপর আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে যে ‘বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট’ হবে, সেখানে তা চূড়ান্ত রূপ পাবে।বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বাংলা এবার একটি নতুন মডেলের ওপর জোর দিচ্ছে। সেটি হল দেশের পাশাপাশি এক দেশের রাজ্যের সঙ্গে অন্য দেশের রাজ্যের বিনিয়োগ চুক্তি। তাতে বিনিয়োগের পথ আরও মসৃন হয় বলেই মনে করেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। এদিনের বৈঠকে যেসব দেশের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন তাঁদের বেশিরভাগেরই অমিতবাবুর এই প্রস্তাব পছন্দ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।বিনিয়োগের প্রস্তুতি বৈঠকে এদিন চীন, জাপান, আমেরিকা, জার্মানি, সৌদি আরব, ওমান, চেক রিপাবলিক, স্পেন সহ ৩৫টি দেশের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। রাজ্যের পক্ষে অমিতবাবু ছাড়াও পশ্চিমবঙ্গের শিল্পসচিব, পশ্চিমবঙ্গ শিল্পোন্নয়ন কর্পোরেশন, দিল্লিতে রা঩জ্যের রেসিডেন্ট কমিশনার কৃষ্ণা গুপ্তা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে তাজপুর, কুলপি বন্দর নিয়ে জাপান আগ্রহ প্রকাশ করেছে। চীনও বন্দরে বিনিয়োগে কৌতহল দেখিয়েছে। গভীর সমুদ্র বন্দর তৈরিতে পশ্চিমবঙ্গ উদ্যোগ নেওয়ায় চীন বাহবাও দিয়েছে। ম্যানুফাকচারিং এবং পরিকাঠামোর ক্ষেত্রে বিনিয়োগে জোর দিয়েছে চীন। পাশাপাশি জার্মানি পরিকাঠামো উন্নয়নে বিনিয়োগের কথা বলেছে।বৈঠকের পর অমিত মিত্র জানান, স্পেন সৌরশক্তিতে বিনিয়োগ করবে বলে বৈঠকে জানিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে সৌরশক্তি এবং রিনিউয়েবল এনার্জির ক্ষেত্রে প্রভূত বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। স্পেন সেদিকেই আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আশাকরি আগামী বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটে চুক্তিও হয়ে যাবে। বৈঠকে অস্ট্রেলিয়া মাইনিংয়ের ওপর জোর দিয়েছে। খনির কাজে লাগে এমন মেশিনারি তৈরিতে বিনিয়োগে উৎসাহ দেখিয়েছে তারা। অমিতবাবু জানান, একইভাবে ইতালি চর্মশিল্পে বিনিয়োগের কথা বলেছে। রাজ্যের তরফ থেকে ইতালিকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, চর্মশিল্পের যেসব যন্ত্রপাতি লাগে তা বাংলাতেই তৈরি করুক।অমিতবাবু বলেন, বিনিয়োগের প্রস্তুতি বৈঠক অত্যন্ত ভালো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে বাংলায় বিনিয়োগের আহ্বান করেছেন তা এবার বাস্তবে ফলছে। বাংলাকে সিলিকন ভ্যালির মতো গড়ে তোলার জন্য তথ্য প্রযুক্তিতে জোর দেওয়ার

    LEAVE A REPLY