চাপের মুখে মালিয়া ! ব্যাঙ্কের সব টাকা ফেরত দিতে চাইলেন তিনি

    0
    138

    খোঁজখবর ওয়েবডেস্ক ঃকিংফিশার এয়ারলাইন্সের মালিকের বিরুদ্ধে প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকার ঋণখেলাপির অভিযোগ রয়েছে।২০১৬ সালে ভারত ছেড়ে পালিয়ে যান মালিয়া। তখন থেকে তিনি ব্রিটেনেই রয়েছেন।বিজয় মালিয়ার প্রত্যার্পণ মামলার চূড়ান্ত শুনানিতে আর বাকি পাঁচ দিন। তার আগেই বিস্ফোরক অভিযোগ ঋণখেলাপি মালিয়ার। ঋণের সব টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দিলেন লিকার ব্যারন। বুধবার সকালে টুইট করে এই প্রস্তাব দেন মালিয়া।প্রত্যার্পণ মামলায় এমনিতেই বেশ চাপে আছেন মালিয়া। সম্প্রতি তাঁর বেশ কিছু দাবি খারিজ করে দিয়েছে ইংল্যান্ডের আদালত। এমনকি একে একে তাঁর সম্পত্তির বেশ কিছু অংশও বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দিনপাঁচেক পরেই ঠিক হয়ে যাবে মালিয়াকে ভারতে ফেরানো হবে কিনা। তাই চাপের মুখে খানিকটা নতিস্বীকার করেন লিকার ব্যারন। ব্যাংক থেকে নেওয়া ঋণের ১০০ শতাংশ টাকাই ফেরত দিতে চান তিনি। বুধবার টুইট করে একথা জানালেন মালিয়া। তিনি বলেন, ” ভারতীয় সংবাদমাধ্যম মনে হয় ধরেই নিয়েছে আমাকে ভারতে প্রত্যার্পণ করতে হবে। সেটা আলাদা বিষয়, সে নিয়ে আইনি পদক্ষেপ আমরা করব। কিন্তু এসবের থেকেও জরুরি সাধারণ মানুষের টাকা৷ আর আমি একশো শতাংশ টাকাই ফিরিয়ে দিতে চাই। কিন্তু আমার প্রস্তাব গ্রহণ করা হচ্ছে না, কেন ?

    মালিয়ার বিরুদ্ধে একাধিক ঋণখেলাপি এবং প্রতারণা মামলা চলছে ভারতের আদালতগুলিতে। ইংল্যান্ডের আদালতেও তাঁর বিরুদ্ধে চলছে প্রত্যার্পণ মামলা। এরই মধ্যে নতুন করে ভারতের সংবাদমাধ্যম এবং সরকারকে কাঠগড়ায় তুললেন লিকার ব্যারন। তাঁর অভিযোগ, অহেতুক তাঁকে ঋণখেলাপি বলে কাঠগড়ায় তোলার চেষ্টা করছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এবং রাজনৈতিক দলগুলি। এর আগেই তিনি কর্ণাটক হাই কোর্টে একটি সমঝোতার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। সেই প্রস্তাব কেন গ্রহণ করা হচ্ছে না, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মালিয়া।

    LEAVE A REPLY