রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলির ঋণ মকুব আসলে একটা কেলেঙ্কারি : মুখ্যমন্ত্রী

খোঁজখবর ওয়েবডেস্ক : ঋণ মকুব নিয়ে আজ সংসদে পেশ হওয়া একটি প্রশ্নের জবাবের প্রেক্ষিতে ফেসবুকে সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।বাংলার এক সাংসদের প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্র জবাব দিয়েছে যে ২০১৪-১৫ অর্থবর্ষ থেকে ২০১৭র সেপ্টেম্বর মাস অবধি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলি ২,৪১,৯১১ কোটি টাকা ঋণ মকুব করেছে। স্তম্ভিত মুখ্যমন্ত্রী বলেন, একদিকে যখন দেশের কৃষকরা দেনার দায়ে কাঁদছেন, এবং আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছেন, এবং ঋণ মকুবের দাবী জানাচ্ছেন, সরকার সেই দাবী গ্রাহ্যই করছে না।তিনি আরও বলেন, “অবিশ্বাস্য। নোটবন্দির সময় আমরা ‘নন পারফর্মিং অ্যাসেট’ এর ইস্যু তুলেছিলাম। এখন ঝুলি থেকে বেড়াল বেরিয়ে পড়ল। রূঢ় বাস্তবটি জনসমক্ষে এল।” মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে সংসদে পেশ করা জবাবেও কেন্দ্র বলছে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলির ক্রেডিট সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করা যাবে না। তিনি জানতে চান এই গোপনীয়তার পেছনে কারণটা কি। রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলির ঋণ খেলাপকারীদের তালিকা অবিলম্বে প্রকাশ করার দাবী জানান তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এটা একটা বিরাট কেলেঙ্কারি।