পিছিয়ে যেতে পারে পঞ্চায়েত ভোট

    0
    166

    খোঁজখবর ওয়েবডেস্ক : পিছিয়ে যেতে পারে পঞ্চায়েত ভোট ৷ বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশের পর এই প্রশ্নই ঘুরে বেড়াচ্ছে রাজ্যের  রাজনৈতিক মহলে ৷ শুক্রবারের হাইকোর্টের নির্দেশ আরও জোরালো করল সেই সম্ভাবনাকে ৷ শাসক দল ও নির্বাচন কমিশনের আবেদন ফেরাল কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ ৷ বৃহস্পতিবার পঞ্চায়েত নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ জারি করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট ৷ ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত ভোট প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ জারি করেন বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ৷ শুক্রবার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের আবেদন নিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে যায় রাজ্যের শাসক দল ৷ একইসঙ্গে মামলার দ্রুত শুনানি আর্জিও জানায় তারা ৷ কিন্তু তাদের সেই আবেদন খারিজ করল কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দার ও অরিন্দম মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ ৷ সোমবার এই মামলার শুনানি রয়েছে ৷ দ্রুত শুনানির আর্জি ফেরানোয় সোমবার অর্থাৎ ১৬ এপ্রিল অবধি হাইকোর্টের অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশই বহাল থাকল ৷ এখনও ভোট প্রক্রিয়ার বহু কাজ বাকি ৷ ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত ভোট প্রক্রিয়ার সমস্ত কাজ বন্ধ থাকছে ৷ ফলে পিছিয়ে যেতে পারে পঞ্চায়েত ভোট ৷ রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত ভোট প্রস্তুতি স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। ফলে, ১ মে-র আগে, প্রতীক বাছাই, ব্যালট পেপার ছাপানোর মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ শেষ করতে পারবে না কমিশন বলে সূত্রের খবর। স্থগিতাদেশ বহাল থাকায় আটকে থাকল নির্বাচনের সব কাজ ৷ জমা পড়া মনোনয়নপত্রের স্ক্রুটিনি চালাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। ১৬ এপ্রিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল। তারপর, প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করার কথা ছিল রাজ্য নির্বাচন কমিশনের। এরপর, নির্দল প্রার্থীদের প্রতীক বাছাইের কাজ কমিশনের হাতে। শেষ পর্যায়ে রয়েছে, ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনের ব্যালট ছাপানোর মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ। ব্যালট পেপার ছাপতে ১০ থেকে ১৪ দিন সময় লাগতে পারে। ফলে, ১৬ এপ্রিলকে মাইলস্টোন ধরলে ভোটপ্রস্তুতির লম্বা প্রক্রিয়া শেষ করতে হাতে সময় পাবে না রাজ্য নির্বাচন কমিশন।

    LEAVE A REPLY