জলসম্পদ অনুসন্ধান ও উন্নয়ন দপ্তরের সাফল্য

    0
    93

    খোঁজখবর ওয়েবডেস্ক ঃ জল সংরক্ষণ ও ক্ষুদ্র সেচ ব্যবস্থার উন্নতিকরণের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প ও উদ্যোগ নিয়েছে জলসম্পদ অনুসন্ধান ও উন্নয়ন দপ্তর।

    জল ধরো জল ভরো

    ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষে ৩১শে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৩১,১৬৫টি জলাশয় তৈরী করা হয়েছে, যার মধ্যে ৫,৯৩৭ টি ৪০ মিটার X ৩০ মিটার X ৩ মিটার আয়তনের ট্যাঙ্ক তৈরী করেছে জলসম্পদ অনুসন্ধান ও উন্নয়ন দপ্তর। ২৫,২২৮টি জলাশয় নির্মাণ ও সংস্কার করা হয়েছে পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তরের সহযোগিতায়। ২০১১-১২ সাল থেকে ২,২৭,১০১টি জল সংরক্ষণ করার জন্য জলাশয় খনন ও সংস্কার করা হয়েছে।

    ক্ষুদ্র সেচের সুবিধা বাড়ানো

    ক্ষুদ্র সেচ ব্যবস্থার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। ১,১৪৩টি সেচ ব্যবস্থা – যেমন, গভীর ও অগভীর নলকূপ, নদীর মাধ্যমে সেচ, জল সেচ, এসএফএমআইএস, চেক ড্যাম, সৌর বিদ্যুৎ চালিত ক্ষুদ্র সেচ ব্যবস্থা ইত্যাদি – গ্রহণের ফলে ৩৬৩৫১ হেক্টর জমিতে সেচের সম্ভাবনা বাড়ানো হয়েছে।

    রুক্ষ জেলাগুলিকে সেচের আওতায় আনা

    বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম ও পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো রুক্ষ এলাকায় ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষে ৩১শে ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত ৩৫১টি সেচ প্রকল্প নেওয়া হয়েছে, যার ফলে ১১,০৭৮ হেক্টর জমিকে সেচের উপযুক্ত করা সম্ভব হয়েছে। এর মধ্যে আছে ৪৮টি চেক ড্যাম ও অন্যান্য ১০৪টি জলাশয় নির্মাণ করা হয়েছে, যার ক্ষমতা ৬,৯৩২ হেক্টর জমিকে সেচ সম্ভব করে তোলা।

    ক্ষুদ্র সেচে সৌর শক্তির ব্যবহার

    ৯৯টি সৌরবিদ্যুৎ চালিত সেচ প্রকল্প চালু হয়েছে যেমন স্প্রিঙ্কলস, টিউবওয়েল, পাম্প, ডাগওয়েল। ২০১৭-১৮ অর্থ বর্ষের ৩১শে ডিসেম্বরের মধ্যে ১,১০৮ হেক্টর জমিকে সেচ সম্ভব করেছে।

    LEAVE A REPLY