গরমে শরীর ঠিক রাখবে সুষম প্রাতরাশ

খোঁজখবর, ওয়েবডেস্ক : তীব্র গরমে ইতিমধ্যেই সাধারণ মানুষের নাজেহাল অবস্থা। তবে ব্যস্ত জীবনে স্কুল, কলেজ বা অফিস কিছুই থেমে নেই, তবে চিকিৎসকরা বলছেন এই দুর্দান্ত গরমে বাড়ি থেকে রওয়ানা হওয়ার আগে সেরে নিতে হবে সুষম প্রাতরাশ ।
সকাল বেলার প্রাতরাশ আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। এই প্রাতরাশ সারাটা দিন আমদেরকে প্রাণবন্ত ও সুস্থ্য রাখতে সাহায্য করে। শরীর ও মন প্রফুল্ল রাখে। সকালের প্রাতরাশে তেল চুপচুপে পরোটা কিংবা তেলে ভাজা সিঙ্গারা সমুচা খুবই অস্বাস্থ্যকর খাবার। এতে দিনের শুরুতেই দেহে ফ্যাট জমা শুরু করে এবং শরীর ভারী হয়ে আসে। সকালের তরতাজা ভাব একেবারেই দূর হয়ে যায়। এমনকি তেলে ভাজা ডিমও ক্ষতিকর। সুতরাং সকালের প্রাতরাশে তেলে ভাজা খাবার অভ্যাস ত্যাগ করুন। অনেকে স্বাস্থ্যকর পানীয় হিসেবে ফলের জুসকে অনেক বেশি প্রাধান্য দেন। কিন্তু বাজার থেকে কিনে আনা ফলের জুস স্বাস্থ্যকর নয় বরং অস্বাস্থ্যকর একটি পানীয়। এতে থাকে প্রচুর পরিমানে চিনি, ফ্লেভার এবং প্রিজারভেটিভ যা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। যদি ঘরে বানানো জুস খেয়ে থাকেন তাতেও অনেকে স্বাদের জন্য যোগ করেন চিনি যা একেবারেই উচিৎ নয়। সুতরাং সকালের ব্রেকফাস্ট টেবিলে ফলের জুস খাওয়া বাদ দিন।

যে খাবারগুলো সকালের প্রাতরাশে আপনাকে সুস্বাস্থ্য দেবে এক নজরে দেখে নিন সেইগুলি
আটার রুটিঃ

আটার রুটি সকালে প্রাতরাশে হতে পারে অন্যতম একটি ভাল খাবার। সকালে পাউরুটি অথবা ভাতের চাইতে আটার রুটি, সবজি, ভাজি, ডিম, ঝোলের তরকারি ,কলা খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভাল।

দইঃ

দিনের শুরুটা দই দিয়ে হোক অনেকেই তা চাননা। কিন্তু দই দেহের জন্য অনেক বেশী কার্যকরী একটি খাবার। রয়েছে ক্যালসিয়াম যা হাড়ের গঠনে কাজ করে। দিনের শুরুটা দই দিয়ে করলে পুরো দিন দেহে থাকবে অফুরন্ত এনার্জি।

ফলমূলঃ

সকালের জলখাবারে ফলমূল রাখলে খুবই ভাল। মৌসুমি যেকোন ফল আমাদেরকে তৃপ্তি দেবে। ফলমূল সালাদের মত করেও খাওয়া যেতে পারে।

চা অথবা কফিঃ

সকালে এক কাপ চা অথবা কফি পান করলে শরীর ও মন উভয়ই প্রফুল্ল থাকবে। কিন্তু সকালে উঠে একাধিক কাপ চা কফি পানের অভ্যাস তৈরি হলে ঘুমের ব্যাঘাত হতে পারে আবার শরীরে তার খারাপ প্রভাব পড়তে পারে।

অনেকেই সকালের প্রাতরাশকে সেইভাবে গুরুত্ব দেন না যা আসলে ঠিক নয়। রাতে খাবার ঠিকমতো খেলেও সকালের প্রাতরাশ গুরুত্বপূর্ণ। সকালের কাজে বের হওয়ার তাড়া থাকলেও ব্রেকফাস্ট সেরেই বের হওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। সকালে ঠিকমতো ব্রেকফাস্ট না হলে সারাদিন আলস্য ভর করতে পারে।