বিজেপিকে ঠেকাতেই হবে, ফোন মমতার

    0
    114
    Kolkata: West Bengal Chief Minister Mamata Banerjee addresses media during the release of all Cabinet Papers on Netaji from 1938 to 1947, at her office in Kolkata on Monday. PTI Photo by Ashok Bhaumik (PTI9_28_2015_000271B) *** Local Caption ***

    কলকাতা ঃ  বিজেপিকে ঠেকানোই প্রধান লক্ষ্য। কারণ একমাত্র বিজেপিই গোটা দেশে বিভাজনের রাজনীতি করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করছে। জাতপাতের রাজনীতি করে মানুষের মধ্যে হিংসা তৈরি করছে। আর তাতে দেশের ধর্মনিরপেক্ষতার ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে গোটা দেশ তথা বিশ্ব আঙিনায়। তাই ২০১৯ সালের আগে কর্নাটক বিধানসভা জেডি(‌এস)‌–কংগ্রেস জোট সরকার গড়ে বিজেপিকে জোর ধাক্কা দেওয়া হোক চান স্বয়ং বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বুধবার সেই পরামর্শ দিতে তিনি টেলিফোন করলেন কুমারস্বামীকে। প্রায় ১৫ মিনিট তাঁদের মধ্যে কথা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। এদিন টেলিফোনে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কর্নাটকের ভাবী মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করে বলেন, ‘‌কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে সরকার গড়ুন। যেভাবেই হোক বিজেপিকে ঠেকাতে হবে। কারণ তারা দেশের ভাবমূর্তি তথা মানুষের জীবন জীবিকা নষ্ট করছে। ২০১৯ সালের আগে এটাই বিজেপির কাছে হবে চরম ধাক্কা।’‌ ইতিমধ্যেই বিজেপিকে ঠেকাতে আগামী ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ফেডারেল ফ্রন্টের ডাক দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। যে রাজ্যে যে রাজনৈতিক দল শক্তিশালী তাঁদের সঙ্গে জোট করে বা তাঁদের জায়গা ছেড়ে দিয়ে বিজেপিকে ঠেকাতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। সেই ফর্মুলাকে কাজে লাগিয়ে এখন বিজেপিকে ঠেকাতে তৎপর জনতা দল সেকুলারও। মঙ্গলবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি টুইট করে বলেছিলেন, কংগ্রেস–জেডিএসের সঙ্গে আরও আগে জোট করলেই ফল অন্যরকম হত। তারপরই কর্নাটকে রাজনৈতিক সমীকরণ পাল্টে যায়। আর কপালে ভাঁজ পড়ে বিজেপির। এবারও জেডি(‌এস)‌–এর রাজ্য সভাপতি কুমারস্বামীকে তাঁর পরামর্শ দেওয়া জাতীয় রাজনীতিতে সুদূরপ্রসারি প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক কারবারিরা। ‌‌

    LEAVE A REPLY