ছ’মাস ধরে ভূপালের সরকারি হোস্টেলে মেয়েদের ধর্ষণ

    0
    395

    খোঁজখবর ওয়েব ডেস্ক: ফের নারকীয় ধর্ষণের ঘটনা ঘটল ভূপালের সরকারি হোস্টেলে। মেয়েদের আটকে রেখে দিনের পর দিন ধর্ষণ করা হত বলে অভিযোগ। পর পর চারজন তরুণীর একই অভিযোগের ভিত্তিতে হোস্টেলের ডিরেক্টর অশ্মিনী শর্মাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিস।

    শনিবার ইন্দোরে হোস্টেলের আরও এক আবাসিক তরুণী পুলিসকে জানিয়েছে, অশ্মিনী তাঁকে জোর করে আটকে রেখে দিনের পর দিন পর্নোগ্রাফি ছবি দেখতে বাধ্য করত। তারপরে ধর্ষণ করত।  শুধু সে–ই নয় অশ্মিনীর লালসার শিকার হয়েছে হোস্টেলের আরও অনেক মেয়ে। কিন্তু তাঁরা কখনও মুখ খোলেনি।

    অবধপুরীর একটি বাড়িতে আটকে রাখা হত হোস্টেলের একাধিক মেয়েকে। সেখানেই চলত এই যৌন নির্যাতন। সেখানে থেকে উদ্ধার হওয়া ২৩ বছরের তরুণীকে উদ্ধার করার পরেই ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে। ধৃত অশ্মিনী শর্মা ১৯ বছরের তরুণীকে ধর্ষণের কথা পুলিসের কাছে স্বীকার করেছেন। কিন্তু হোস্টেলের একাধিক মেয়েকে তিনি যৌননির্যাতন করেছেন তা মানতে রাজি হননি।

    ধৃতের বিরুদ্ধে ৩৭৬(‌ধর্ষণ)‌, ৩৭৭(‌ অপ্রকৃতস্থ নির্যাতন এবং অপরাধ)‌, ৩৫৪(‌ শ্লীলতাহানি)‌ সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। হিপা নগর থানা থেকে মামলা ভূপালে নিয়ে আসা হয়েছে। নির্যাতিতার বয়ান অনুযায়ী, ২০১৭–র সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৮–র ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অশ্মিনী শর্মা তাঁকে ধর্ষণ করে। আদালতে ইতিমধ্যেই নির্যাতিতার বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে।

    LEAVE A REPLY