টলিউডের ভবিষ্যৎ কি এবার তবে থ্রিলারে?

খোঁজ-খবর,ওয়েবডেস্কঃ- বাংলা সিনেমার বাজারে থ্রিলার বরাবরই লাভজনক ছিল। কিন্তু প্রতিটি প্রযোজনা সংস্থার প্রায় সব পরিচালকই পরপর থ্রিলার ঘোষণা করছেন দেখে মনে হয়, ট্রেন্ড এখন থ্রিলারের দিকে ভালই ঝুঁকেছে। একে তো থ্রিলার মানে ভাল কনটেন্ট, তার উপরে হিটেরও রমরমা! সামনে আসছে মৈনাক ভৌমিকের ‘বর্ণ পরিচয়’, সুদেষ্ণা রায়-অভিজিৎ গুহের ‘সামসারা’, প্রতিম ডি গুপ্তের ‘শান্তিলাল ও প্রজাপতি রহস্য’, সৌকর্য ঘোষালের ‘রক্তরহস্য’। একেবারে নতুন গোয়েন্দা সিরিজ়ের প্ল্যানিং নিয়েও এগোচ্ছেন পরিচালকরা। প্রতিম গোয়েন্দা শান্তিলালকে নিয়ে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজ়ি আনতে চান। পরিচালক অরিন্দম শীল বড় পর্দায় নিয়ে আসছেন মিতিন মাসিকে। খবর বলছে, আবীর চট্টোপাধ্যায়-মিমি চক্রবর্তীকে নিয়ে ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পূর্ণ আলাদা থ্রিলার করার দিকে এগোচ্ছেন। মৈনাক ভৌমিক ‘গোয়েন্দা জুনিয়র’ নামে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজ়ির কথা ঘোষণা করেছেন সম্প্রতি, যেখানে গোয়েন্দা হবেন ঋতব্রত মুখোপাধ্যায়। ঋত্বিক চক্রবর্তীও ‘সামসারা’, ‘শান্তিলাল…’ এবং হরনাথ চক্রবর্তীর থ্রিলারে কাজ করলেন। আবার অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিককে এ বছর অরিন্দম শীল এবং সৌকর্য ছাড়াও পরিচালক অভিমন্যু মুখোপাধ্যায়ের থ্রিলারে দেখা যাবে।আসলে রোম্যান্সকেন্দ্রিক কিংবা অ্যাকশনভিত্তিক কমার্শিয়াল ছবির বাজার অনেক দিন ধরেই পড়তি। দক্ষিণী রিমেকের উপরে নির্ভর করেও লাভ হচ্ছে না পরিচালকদের। থ্রিলারের ক্ষেত্রে আবার বাংলা ছবি কিন্তু বেশ লাভবান হয়েছে ইদানীং কালে। ব্যোমকেশের কত ফ্র্যাঞ্চাইজ়ি ভাবুন! সায়ন্তন ঘোষালের ‘যকের ধন’ হিট হওয়ার পরে তাঁর উপরে ভরসা করেছেন প্রযোজকরা। ‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’ আনছেন তিনি। নতুন ব্যোমকেশও তাঁর হাতে। ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সোনাদা ফ্র্যাঞ্চাইজ়ি হিট। গুঞ্জন উঠেছে, ভেঙ্কটেশ তাঁকেই দিতে পারে ব্যোমকেশের ভার। আবার মাসখানেক আগে ‘ভিঞ্চিদা’ও লোকে পছন্দ করেছে। লক্ষ করলে দেখা যাবে, অনলাইন প্ল্যাটফর্মেও থ্রিলারেরই রমরমা। একের পর এক থ্রিলার সিরিজ় কিংবা অরিজিনাল থ্রিলার ছবি সেখানে। সুতরাং প্রশ্ন ওঠে, দর্শককে হলমুখী করতেই কি থ্রিলারের দিকে ঝুঁকছেন সকলে? না হলে যে পরিচালকরা কোনও দিন থ্রিলার বানাননি, তাঁরাও থ্রিলারেরই শরণাপন্ন কেন?